নামাজ পড়তে যাবার সময় সড়কে প্রাণ ঝড়লো এক শিশু’র

বামনায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত শিশু ওবাইদুল হক

বাড়ী থেকে শীতের পোশাক নিয়ে মাগরিবের নামাজ পড়ার উদ্দ্যেশে রাস্তা পার হওয়ার সময় রিজার্ভ একটি বাস ৫ বছরের এক শিশুকে চাপা দিয়ে পালিয়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই শিশুটির মৃত্যু হয়েছে। নিহত ওই শিশুর নাম মো. ওবায়দুল হক(৫) । সে পার্শ্ববর্তী মঠবাড়িয়া উপজেলার হলতা গ্রামের শাহ-আলম এর শিশু পূত্র।

গত শুক্রবার(১৫ ডিসেম্বর) দিবাগত রাত ৮টার দিকে বরগুনার বামনা উপজেলার বামনা-পাথরঘাটা মহাসড়কের জয়নগর নামক স্থানে এই মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনাটি ঘটে। তবে ঘাতক বাসটি পালিয়ে যাওয়ায় এখন পর্যন্ত বাসটি সনাক্ত করতে পারেনি বামনা থানা পুলিশ। এ ঘটনায় নিহত শিশুটির নানা এমাদুল হক জমাদ্দার বাদী হয়ে বামনা থানায় ঘটনার দিন রাতেই একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

আজ শনিবার সকালে নিহত শিশুটির মরদেহ ময়না তদন্ত শেষে তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, নিহত শিশু ওবায়দুল হক কিছুদিন পূর্বে নানা বাড়ী জয়নগর বেড়াতে আসে। নানা এমাদুল জমাদ্দারের সাথে ঘটনার সময় শিশুটি মাগরিবের নামাজ আদায় করতে বাড়ীর পাশে মসজিদে যায়। নানা এমাদুল জমাদ্দার শিশুটিকে বাড়ী থেকে শীতের পোশাক পরিধান করে আসতে বলেন। শিশুটি শীতের পোশাক পরিধান করে পুনরায় মসজিদে আসার উদ্দেশ্যে সড়ক পার হওয়ার সময় পিরোজপুর থেকে আসা দ্রুত গতির একটি রিজার্ভ বাস শিশুটিকে চাপাদিয়ে পালিয়ে যায়। স্থানীয়রা শিশুটিকে তাৎক্ষনিক বামনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক শিশুটিকে মৃত্যু ঘোষনা করেন।

এব্যপারে বামনা থানার অফিসার ইনচার্জ তুষার কুমার মন্ডল বলেন, আমরা ঘটনার পর থেকে ঘাতক বাসটি খুজতেছি। এ ব্যাপারে হত্যা মামলা নিয়েছি। আশাকরি বাস ও বাসের চালককে আমরা সনাক্ত করে আইনের আওতায় নিয়ে আসতে পারবো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপি বা সিলেক্ট করা যাবে না।