শামীম ওসমানের সাথে লড়তে চান ১০ প্রার্থী।

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য একে এম শামীম ওসমানের সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে চান ১০ জন। এ জন্য তারা মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। বৃহস্পতিবার মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার শেষ দিন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনে শামীম ওসমানসহ মোট ১১ জনের মনোনয়ন জমা দেয়ার বিষয়টি জানিয়েছে জেলা নির্বাচন অফিস।

প্রার্থীরা হলেন- এ কে এম শামীম ওসমান (আওয়ামী লীগ), রাশেদুল ইসলাম (স্বতন্ত্র), আলী হোসেন (তৃণমূল বিএনপি), মূরাদ হোসেন জামাল (জাকের পার্টি), ছালাউদ্দিন খোকা (জাতীয় পার্টি), সেলিম প্রধান (বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টি), হাবিবুর রহমান (ইসলামি ফ্রন্ট বাংলাদেশ), শহিদ উন নবী (ন্যাশনাল পিপলস পার্টি), গোলাম মোর্শেদ রনি (বাংলাদেশ কংগ্রেস), ছৈয়দ হোসেন (জাসদ), কাজী দেলোয়ার হোসেন (স্বতন্ত্র)।

 

 

১৯৯৬ সালে সপ্তম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে শামীম ওসমান সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। ২০০১ সালে অবস্থান হারানোর পর, তিনি ভারত ও কানাডায় আত্মগোপনে চলে গিয়েছিলেন। প্রায় আট বছর পর, ২০০৯ সালের এপ্রিলে তিনি নারায়ণগঞ্জে ফিরে আসেন। আওয়ামী লীগ তখন ক্ষমতায় ফিরেছিল। এর মধ্যে শামীম ওসমানের আসনে চিত্রনায়িকা কবরী সরোয়ার এমপি হন। ২০১৪ ও ২০১৮ সালের নির্বাচনে আবারো এমপি হন শামীম ওসমান।

 

 

নারায়ণগঞ্জ জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা কাজী ইস্তাফিজুল হক আকন্দ বলেন, কোনো প্রার্থী আচরণবিধি লঙ্ঘন করলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। এজন্য নির্বাচন কমিশন থেকে নির্বাচনী অনুসন্ধান কমিটি এবং আচরণবিধি লঙ্ঘনে ব্যবস্থা নিতে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ দেয়া আছে। তিনি আরো বলেন, আশা করছি, অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচন উপহার দিতে পারব।
এ দিকে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নারায়ণগঞ্জের পাঁচটি আসনে ১৩ জন স্বতন্ত্র প্রার্থীসহ আওয়ামী লীগ, জাতীয় পার্টি, তৃণমূল বিএনপি ও অন্যান্য বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের ৪৫ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। তাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছেন- নারায়ণগঞ্জ-১ (রূপগঞ্জ) আসনের আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী গোলাম দস্তগীর গাজী বীরপ্রতীক, তৃণমূল বিএনপির মহাসচিব তৈমূর আলম খন্দকার, নারায়ণগঞ্জ-(আড়াইহাজার) আসনে আওয়ামী লীগের নজরুল ইসলাম বাবু, জাতীয় পার্টির আলমগীর সিকদার লোটন, নারায়ণগঞ্জ-৩ (সোনারগাঁও) আসনে আওয়ামী লীগের আব্দুল্লাহ আল কায়সার, জাতীয় পার্টির লিয়াকত হোসেন খোকা, নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনে আওয়ামী লীগের শামীম ওসমান, নারায়ণগঞ্জ- (শহর-বন্দর) আসনে জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থী সেলিম ওসমান।

নারায়ণগঞ্জ-১ আসনে ১০ জন, ২ আসনে ৬ জন, ৩ আসনে ১৩ জন, নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনে ১১ জন, নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনে ৫ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।
সূত্র মতে, নারায়ণগঞ্জে বর্তমানে মোট ভোটার সংখ্যা ২২ লাখ ৫০ হাজার ৬৯১ জন। গত ৫ বছরে ভোটার বেড়েছে ২ লাখ ৩৭ হাজার ৬৯ জন। নারায়ণগঞ্জের পাঁচটি আসনে ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ৭৮২টি। ভোট কক্ষ ৪ হাজার ৯৮৩টি। ২০১৮ সালে অনুষ্ঠিত জাতীয় সংসদ নির্বাচনের চেয়ে ভোটকেন্দ্র ১২১টি ও ভোট কক্ষ বেড়েছে ৩ হাজার ৬৭টি।

 

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপি বা সিলেক্ট করা যাবে না।