ফকিরহাট উপজেলার নলধা মৌভোগ ইউনিয়নের কামটা এলাকার বখাটে যুবক ফয়সাল মিয়া গ্রেফতার

শেখ সৈয়দ আলী, নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

ফকিরহাট উপজেলার কামটা এলাকায় ফয়সাল মিয়া (২৬) নামে এক মাদকসেবী ও বখাটে যুবকের অত্যাচারে এলাকাবাসী অতিষ্ঠ হয়েছে পড়েছে। অবশেষে তাকে স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়েছে। তাকে রোববার কামটা এলাকার
লোকজন আটকে রাখে।

পরে তাকে পুলিশের নিকট সোপর্দ করে। ফয়সাল মিয়া কামটা গ্রামের সত্তার মিয়ার ছেলে। তার বিরুদ্ধে কয়েকটি এলাকায় একাধিক অভিযোগ রয়েছে বলে স্থানীয়রা জানান।

এদিকে, বিদ্যালয়ে যাতায়াতের সময় শিক্ষার্থীদের নানাভাবে উত্যোক্ত করার অভিযোগে ওই
ফয়সালের শাস্তি দাবী করেন বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক, অভিভাবক, শিক্ষার্থী সহ স্থানীয়
জনগন।
শিউলি বেগম, সাবিনা বেগম মো মতলুব হোসেন সহ কয়েকজন শিক্ষক, অভিভাবক ও স্থানীয়
লোকজন জানান, ছাত্রীরা বিদালয়ে যাতায়াতের সময় নানাভাবে উত্যোক্ত করে আসছিল। এর
প্রতিবাদ করতে গেলে উল্টে ভয়ভীতি দেখাতো। মাদকসেবী ফয়সালের বিরুদ্ধে ভয়তে কেউ কিছু
করার সাহস পেতেন না। যে কারনে কয়েকটি পরিবার তার ভয়ে বাড়ী ছাড়া রয়েছেন।
স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান সরদার আমিনুর রশিদ মুক্তি জানান, ফয়সালের বিরুদ্ধে এলাকায়
একাধিক নানা অভিযোগ রয়েছে। পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করেছে। সে একজন মাদকসেবী বলে
এলাকায় পরিচিত।

ফকিরহাট মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আশরাফুল আলম বলেন, শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টার
দিকে কাপড় ব্যবসায়ি খাঁন সাইদুজ্জামান জনি (৪৫) কামটায় একটি চায়ের দোকানে বসে
থাকা অবস্থায় ওই ফয়সাল তার উপর হামলা করে। এতে জনি গুরুত্বর আহত হন। এ ঘটনায় আহতের ভাই খাঁন রনি বাদি হয়ে স্থানীয় ফয়সাল মিয়াকে অভিযুক্ত করে থানায় একটি মামলা করেন। ওই মামলার
আসামী হিসেবে ফয়সাল মিয়াকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাকে সোমবার (২২ জানুয়ারি)
সকালে বাগেরহাট বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। মামলাটি বর্তমানে তদন্তধিন রয়েছে। #

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপি বা সিলেক্ট করা যাবে না।